করোনা সঙ্কটের সময় দীর্ঘমেয়াদী ব্যথা উপশমের কার্যকর সমাধান

করোনা সঙ্কটের সময় দীর্ঘমেয়াদী ব্যথা উপশমের কার্যকর সমাধান

করোনা সঙ্কটের সময় দীর্ঘমেয়াদী ব্যথা উপশমের কার্যকর সমাধান

আমাদের দেশে এমন অনেক ভুক্তভোগী আছেন যাদের ঘাড়, কাঁধ, কোমর, হাঁটুর ব্যথা দীর্ঘ সময়ের সঙ্গী। এই সমস্যার ভুক্তভোগীদের একটি বড় অংশ হলেন তারা যাদের বয়স ৪০ বছরের উপর। সাধারণত এই ধরণের দীর্ঘ মেয়াদী ব্যথায় বিভিন্ন ব্যথানাশক ওষুধের পাশাপাশি চিকিৎসকরা যে পরামর্শটি সবচেয়ে বেশি দিয়ে থাকেন তা হল থেরাপি গ্রহণ করা। দীর্ঘমেয়াদী ব্যথানাশক ওষুধের ব্যবহারে রয়েছে হার্ট অ্যাটাক, শ্রবণশক্তি হ্রাস, লিভার ও কিডনির ক্ষতি সহ আরও বিভিন্ন ধরণের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া। আবার চলমান করোনা সংকটের সময় এই সকল ভুক্তভোগী মানুষগুলো হয়তো থেরাপির জন্য বাসা থেকে বের হয়ে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার চেয়ে ব্যথা সহ্য করাটাকেই সবচেয়ে ভাল সিদ্ধান্ত বলে মেনে নিবেন। কিন্তু এই ধরণের সিদ্ধান্ত অনেক সময় আত্মঘাতী হতে পারে যদি ব্যথা নিয়ন্ত্রণ করার পদ্ধতি যথাসময়ে গ্রহণ না করা হয়। 

 দীর্ঘ মেয়াদী ব্যথার চিকিৎসায় বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত একটি পদ্ধতির পরিচিতি

কোভিড -১৯ প্রাদুর্ভাবের সময় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত এবং ভিড় এড়ানো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর এই বিরূপ পরিস্থিতিতে প্রত্যেকের স্ট্রেসের মাত্রা বাড়তে থাকে এবং দীর্ঘস্থায়ী ব্যথায় আক্রান্ত ব্যক্তিরা অন্য যে কারও চেয়ে ভাল জানেন যে, স্ট্রেস ব্যথার লক্ষণ এবং সংবেদনশীলতা বাড়িয়ে তুলতে পারে। সুতরাং এই মহামারী একজন সুস্থ্য, স্বাভাবিক মানুষের চাইতে দীর্ঘস্থায়ী রোগের সাথে যুদ্ধ করা লোকদের জন্য আরও বেশি কঠিন।

এইসময়ে যে কোন মানুষের সবচেয়ে বড় উদ্বেগের বিষয় হল- হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা সুবিধা পাবেন কিনা? কেননা এই মুহূর্তে হাসপাতালগুলো এতটাই পরিপূর্ণ যে, জরুরি হিসাবে বিবেচনা না করা অবধি হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার সুবিধাটি বেশ সীমিত হয়ে গিয়েছে। এমনকি বাংলাদেশের বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে চিকিৎসকের চেম্বারে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহণের সুবিধাও অনেকাংশে সংকীর্ণ এবং ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে গিয়েছে।   

সুতরাং – দীর্ঘমেয়াদী এই মহামারীর মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা এবং স্ট্রেস মোকাবেলায় কী করবেন?

এখনই সময় এমন কোন বিকল্প পদ্ধতি গ্রহণ করা যা সর্বজনস্বীকৃত এবং পরীক্ষিত, যা ব্যথা নিরাময়ে চিকিৎসক দ্বারাও নির্দেশিত। আর এমনই একটি যন্ত্র হল Bi-BEAT Ltd এর Electro-Health যা PEMF (Pulsed Electro Magnetic Field) প্রযুক্তি ব্যবহার করে দীর্ঘ মেয়াদী ব্যথার সমাধান দেয়। Electro-Health যন্ত্রটি একটি নন-কেমিক্যাল, নন- ইনভেসিভ, নন-টক্সিক এবং সম্পূর্ণ পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া মুক্ত ঘরোয়া থেরাপি পদ্ধতি। যে সকল ক্ষেত্রে এই যন্ত্রটি কার্যকর-

  • ঘাড়, কাঁধ, কোমর এবং হাঁটুর ব্যথা
  • বার্ধক্য জনিত ব্যথা
  • মাংসপেশীর ব্যথা
  • অস্টিওপোরোসিস
  • অস্টিও আরথ্রাইটিস
  • রিউম্যাটয়েড আরথ্রাইটিস
  • গাউট
  • ফ্রোজেন শোল্ডার
  • স্পোর্টস ইনজুরি   
  • টেনিস এলবো
  • ডিস্ক বালজিং
  • ডিস্ক প্রোলাপ্স
  • ডিস্ক হার্নিয়েশন
  • স্পাইনাল স্টেনসিস
  • ডায়াবেটিস নিউরোপ্যাথি
  • পি এল আই ডি
  • সায়াটিকা
  • স্পন্ডোলাইটিস
  • টেইলবোন পেইন
  • মাসল স্পাজম
  • এ সি এল ইনজুরি

প্রাকৃতিক উপায়ে ব্যথা নিরাময়ের পিছনে রয়েছে যে প্রযুক্তির অবদানঃ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাইবিটের গবেষকদের তৈরি বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত Pulsed Electro Magnetic Field (PEMF) পদ্ধতি প্রয়োগের যন্ত্র Electro-Health একটি নন ইনভেসিভ এবং ড্রাগ-মুক্ত থেরাপি পদ্ধতি, যা ঘরে বসেই নিরাপদে ব্যথা  নিরাময়ের জন্য ব্যবহার করা যায়।  পালসড জেনারেটর দ্বারা কয়েলের মধ্য দিয়ে একটি পালসেটিং কারেন্ট চালনা করে এই ডিভাইসটি এমন চৌম্বক শক্তির পালস তৈরি করে যা কোন মাধ্যম ছাড়াই অবাধে শরীরে প্রবেশ করে এবং আবেশের মাধ্যমে শরীরের ভেতরে আবার মৃদু বিদ্যুৎ শক্তি তৈরি করে। এতে শরীরের কোষগুলোতে অক্সিজেন ও অন্যান্য উপাদানগুলো সহজে পৌঁছাতে পারে যা ব্যথা নিরাময়ে শরীরের স্বাভাবিক প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করে।

পালসটিং তড়িৎ-চৌম্বক ক্ষেত্রটি কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়াই ব্যথা হ্রাসে অত্যন্ত সফল। কম ফ্রিকোয়েন্সির তড়িৎ-চৌম্বক পালস  ত্বকের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে পেশী, হাড়, টেন্ডন এবং এমনকি অঙ্গগুলির গভীরে প্রবেশ করে কোষের শক্তি সক্রিয় করে এবং এর প্রাকৃতিক ক্ষয়পূরণ প্রক্রিয়াগুলিকে  ত্বরাণ্বিত করে। এছাড়াও শরীরের নিজস্ব হিলিং প্রক্রিয়াকে তরান্বিত করে।

এ পদ্ধতির সুবিধা হল যে এর কোন পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া নেই এবং রোগী ঘরে বসেই এ চিকিৎসা নিতে পারেন। তাই এই চিকিৎসা গ্রহণ করে রোগী সবসময়ের জন্যই ভাল থাকতে পারবেন।

যন্ত্রটি সম্পর্কে আর বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুনঃ https://bibeat.com/product/electro-health/

এ সম্পর্কিত আরও তথ্য জানতে নিচের ভিডিওটি দেখতে পারেনঃ

যেহেতু গোটা বিশ্ব অদৃশ্য শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কাজ করেছে, দীর্ঘস্থায়ী ব্যথায় আক্রান্তরা এইসময়ে যথাযথ চিকিৎসা না পাওয়ায় বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছেন (তীব্র ব্যথা, তীব্র স্ট্রেইন)।দীর্ঘস্থায়ী ব্যথার জন্য একটি প্রাকৃতিক, সামগ্রিক সমাধান নির্বাচন করাই হতে পারে এই চ্যালেঞ্জিং সময়ের সঠিক সিদ্ধান্ত।

Electro-Health অর্ডার বা যে কোন প্রয়োজনে কল করুন- ০১৯৩৩৩২২৬৯২, ০১৯৩৩৩২২৬৯৩

Enter your keyword